সংক্ষিপ্ত উপস্থাপনা

পরিচিতি

What We Do
প্রয়াত জাহানারা কাঞ্চন, ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী
ইলিয়াস কাঞ্চন, প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান, নিসচা

আমাদের গল্প

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এখন বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় আন্দোলনের রূপ নিয়েছে। ১৯৯৩ সালের ২২ শে অক্টোবর প্রখ্যাত চলচ্চিত্র শিল্পী ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী জাহানারাকাঞ্চনের শোকার্ত মৃত্যুবরণের পরে ১৯৯৩ সালের ১লা ডিসেম্বর এই সংস্থাটি প্রতিষ্ঠিত হয়। “আমাদের অবশ্যই সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে” এই বার্তাটি বাংলাদেশের সীমান্ত ছাড়িয়ে গেছে এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামে এর প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হয়েছে। দেশের সকল স্তরে এই বার্তাটি এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ইলিয়াস কাঞ্চনের নেতৃত্বাধীন আন্দোলনের সংগঠকদের পাশে সর্বস্তরের মানুষ সম্মিলিতভাবে দাঁড়িয়েছেন।

উদ্দেশ্য এবং মূল কার্যক্রমসমূহ

সড়ক সুরক্ষা নিশ্চিতকরণ সম্পর্কিত বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের মূল লক্ষ্যটি হচ্ছে সড়ক সুরক্ষা সম্পর্কিত বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানো

যানবাহন অপারেটর, যানবাহন মালিক এবং রাস্তা ব্যবহারকারীদের জন্য। এই উদ্দেশ্যে আমরা বিভিন্ন ধরণের কার্যক্রম  পরিচালনা করে থাকি। মূল কর্মকাণ্ডের মধ্যে রয়েছে নতুন শিক্ষিত ড্রাইভার তৈরি করা, বিদ্যমান ড্রাইভারদের প্রশিক্ষণ দেওয়া, সচেতনতা বাড়াতে কর্মশালা, সমাবেশ, প্রচার, প্রশিক্ষণ, নাটক এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজনা, লিফলেট, পোস্টার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ডস, স্ট্রিট ড্রামা পরিচালনা এবং বিল বোর্ড প্রচলন করা, কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুসারে ফুটওভার ব্রিজ/আন্ডারপাস, জেব্রা ক্রসিং এবং অন্যান্য নিয়ম মানতে পথচারীদের সচেতন করা।

অনুরূপ কর্মকাণ্ডের উপর অভিজ্ঞতা

১৯৯৩ সাল থেকে আমাদের সংস্থা এই ক্ষেত্রে এবং সমজাতীয় পরিস্থিতিতে কাজ করার জন্য প্রচুর অভিজ্ঞতা সংগ্রহ করেছে। এই উদ্দেশ্যে প্রয়োজনীয় আধুনিক সরঞ্জামাদি সহ সকল প্রকার লজিস্টিক সহায়তার জন্য আমাদের কাছে এখন বিশেষজ্ঞ এবং দক্ষ কর্মী রয়েছে।

নিসচা একই ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত সংস্থাগুলির সাথে যৌথভাবে কাজ করেছেঃ

  • জিআইজেড এবং এডিবি এর সাথে সহযোগিতায় প্রকল্প। ৪০ জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ে বিদ্যমান ড্রাইভারদের সচেতনতা প্রশিক্ষণ।

০১. ৪০ জেলা ও উপজেলা স্তরে সচেতনতামূলক সমাবেশ আয়োজন ।
০২. সাতটি শর্ট স্কিড ড্রামা এবং ৪৫ মিনিটের একটি তথ্যচিত্র- “একটি স্বপ্নের মৃত্যু”।
০৩. সচেতনতার উদ্দেশ্যে ২০টি বিলবোর্ড তৈরি করা।
০৪. ৩০১টি সংকীর্ণ ব্রিজের উপর ট্রাফিক প্রতিচ্ছবি সংশোধন করা।
০৫. সমস্ত প্রশিক্ষণ সামগ্রী প্রস্তুতকরণ: ফোল্ডার, প্রশিক্ষণ বই, লিফলেট, পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন ইত্যাদি।
০৬. সমস্ত সমাবেশের উপাদান প্রস্তুতকরণ: টি-শার্ট, ক্যাপ, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড, ব্যানার স্টিকার ইত্যাদি।

সমস্ত প্রোগ্রামে নিম্নলিখিত ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন:

০১. চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন, চেয়ারম্যান, নিরাপদ সড়ক চাই
০২. মন্ত্রী/সংসদ সদস্য/স্থানীয় জেলাগুলির মেয়র
০৩. ডিসি, সিভিল সার্জন, পুলিশ কমিশনার/স্থানীয় জেলাগুলির সুপার।
০৪. পরিবহন মালিক সমিতি, পরিবহন কর্মচারী ইউনিয়ন
০৫. টিএনও, উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা প্রশাসনের অন্যান্য নেতারা।
০৬. সড়ক ও জনপথ এবং এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী।
০৭. নিরাপদ সড়ক চাই’ র কেন্দ্রীয় এবং শাখা নেতৃবৃন্দ।
০৮. নিসচা, বিআরটিএ ইত্যাদির অভিজ্ঞ প্রশিক্ষকগণ।

  • নিসচা সারা বাংলাদেশে ৬০০টিরও বেশি সচেতনতা কর্মসূচির আয়োজন করেছে (সমস্ত ৬৪টি জেলা জুড়ে)
  • বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) এর সাথে প্রকল্প

০১. বিআরটিএর বিদ্যমান ড্রাইভার এবং প্রচার কার্যক্রমের সকল সচেতনতা প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে নিসচা’র চেয়ারম্যান এবং অভিজ্ঞ প্রশিক্ষকগণ অংশ নিয়েছিলেন এবং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করেছিলেন।

০২. সাবজেক্ট ভিত্তিক শর্ট স্কিডে তৈরি ক) হেলমেট খ) ওভার ব্রিজ, আন্ডারপাস গ) মোবাইল ফোন এবং ঘ) সিট বেল্ট ইত্যাদি।

  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের সাথে প্রকল্প:

আমেরিকান সেন্টার, মার্কিন দূতাবাসের সাথে যৌথভাবে বিদ্যমান ড্রাইভারদের সচেতনতা সমাবেশ/প্রচার কার্যক্রম এবং প্রশিক্ষণ। প্রচারের সমাবেশে প্রায় ২৫,০০০ নাগরিক উপস্থিত ছিলেন এবং ৭৫০ জন ড্রাইভার এতে সচেতনতা প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছিলেন নিচের জেলাগুলোতে

০১. সিলেট

০২. চট্টগ্রাম

০৩. গাজীপুর, ঢাকা

০৪. পাবনা

০৫. খুলনা

ফোল্ডার, বই, টি-শার্ট, কলম, নিবন্ধক, সনদপত্রের মতো সমস্ত প্রশিক্ষণ সামগ্রী আমেরিকান সেন্টার ও মার্কিন দূতাবাস দ্বারা স্পনসরকৃত এবং নিসচা দ্বারা সরবরাহ করা হয়।

আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লুএইচও), ডয়চে পোস্ট ডিএইচএল গ্রুপ, লাফার্জ সিমেন্ট, ওয়ালটন, রোটারি ইন্টারন্যাশনাল, সিটি কর্পোরেশন ইত্যাদির মতো আরও অনেক সংস্থার সাথেও কাজ করেছি।

এটি ছাড়াও আমাদের ‘নিসচা ড্রাইভিং এবং মেকানিকাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট‘ নামে একটি ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট রয়েছে। আমরা বিনা মূল্যে এসএসসিতে উত্তীর্ণ দরিদ্র ও বেকার যুবকদের লাইসেন্স সহ পেশাদার ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ সরবরাহ করি এবং তাদের উপযুক্ত চাকরি সরবরাহ করি।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) বর্তমানে সারা বছর জুড়ে পরিচালিত দুটি সক্রিয় প্রকল্পের সাথে জড়িত; একটি হোলো বিদ্যমান চালক এবং সাধারণ রাস্তা ব্যবহারকারীদের জন্য সচেতনতা প্রশিক্ষণ কার্যক্রম এবং অন্যটি আমাদের নিসচা ড্রাইভিং এবং মেকানিকাল প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট এর মাধ্যমে সারা দেশে শিক্ষিত পেশাদার ড্রাইভার তৈরি করছে। আমাদের ভবিষ্যতের পরিকল্পনা রয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির একটি বিশেষায়িত মেডিকেল হাসপাতাল তৈরি করার জন্য যা দুর্ঘটনার শিকার মানুষ ও দুর্ঘটনাজনিত জরুরি পরিস্থিতিগুলির জন্য আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসা এবং পুনর্বাসন এর বাবস্থা করবে। এই তিনটি প্রকল্পের প্রকৃত উদ্দেশ্য অর্জন এবং বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন সরকারী সংস্থা, আন্তর্জাতিক/বিদেশী সংস্থা, বেসরকারী প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিদের আর্থিক সহায়তা এবং অন্যান্য প্রযুক্তিগত এবং বিশেষজ্ঞের সহায়তা প্রয়োজন।

এই মূল্যবান সামাজিক আন্দোলন যাদের মহৎ উদ্যোগে শুরু

নিরাপদ সড়ক চাই প্রতিষ্ঠা

প্রতিষ্ঠাতা সদস্যঃ

ইলিয়াস কাঞ্চন, মিজু আহমেদ, গোলাম কিবরিয়া, সিদ্দিক জামাল নান্টু, সৈয়দ হারুন, শামীম আলম দীপেন, রায়হান আলী মল্লিক, শরিফুল আজম, মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন, নাসিম রুমি, মুশফিকুর রহমান গুলজার, জাকীর হাসান, আবুল কালাম আজাদ (আজাদ শাহ্‌), লিটন এরশাদ, মুজতবা সউদ, ইমরুল শাহেদ, সোয়াদ করিম, ফরিদ বাশার,  আসাদুর রহমান, রফিকুজ্জামান, ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম, বাবর, দিতি, কাজল, অমিত হাসান, সাত্তার, শাহনাজ, সোনিয়া, রবি চৌধুরী, ডলি সায়ন্তনী, নাসির খান, মাহফুজুর রহমান খান, শাহ্‌ আলম কিরণ, সোহানুর রহমান সোহান, মুশতাক আহমেদ, আবদুর রহমান, বেলায়েত হোসেন, নরেশ ভূঁইয়া, হাসান মাহমুদ, সাদেক হোসেন বাবুল, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, সৈয়দ আমিনুল ইসলাম এলিন, হারুনুর রশিদ, আলিমুজ্জামান, নাঈম, শাবনাজ, ওমর সানী, মৌসুমী, শাবনুর, পপি, মাসুকা নাসরিন রাকা, হুমায়ুন ফরিদী, নাসির আহমেদ, অঞ্জনা, অরুণা বিশ্বাস, ইশরাত জাহান ইমা, মিরাজুল মইন জয়।

প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টামন্ডলীঃ

এটিএম শামসুজ্জামান (প্রয়াত), শওকত জামিল, ওয়াসিমুল বারী রাজীব (প্রয়াত), মাসুদ পারভেজ, শিবলী সাদিক (প্রয়াত), কে এম আর মঞ্জুর (প্রয়াত), সাইদুর রহমান সাঈদ ও আব্দুর রাজ্জাক।

প্রথম আহবায়ক কমিটিঃ

আহবায়কঃ ইলিয়াস কাঞ্চন

যুগ্ম আহবায়কঃ মিজু আহমেদ ও গোলাম কিবরিয়া

সদস্য সচিবঃ শামীম আলম দীপেন

সদস্যঃ প্রতিষ্ঠাতা সকল সদস্য

বর্তমান উপদেষ্টামণ্ডলী

অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ

প্রতিষ্ঠাতা, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র

মতিউর রহমান

সাংবাদিক, লেখক

কারার মাহমুদুল হাসান

প্রাক্তন সচিব ও লেখক

ড. শামসুল হক

গণপরিবহন বিশেষজ্ঞ ও অধ্যাপক, পুরকৌশল বিভাগ, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)  

মো: আইয়ুবুর রহমান খান

অ্যাডঃ মনজিল মোর্শেদ

প্রেসিডেন্ট, এইচআরপিবি

ম হামিদ

সাবেক মহাপরিচালক, বিটিভি

ডাঃ. অরূপ রতন চৌধুরী

দন্ত বিশেষজ্ঞ এবং মিডিয়া ব্যক্তিত্ব

ডঃ এ এইচ নোমান

ডাঃ. সানোয়ার হোসেন

ডা. আলমগীর মতি

চেয়ারম্যান, মডার্ন হারবাল

সৈয়দ মাহবুবুর রহমান

সংক্ষিপ্ত সংখ্যা

১২০+

স্থানীয় শাখা

৭+

আন্তর্জাতিক অধ্যায়

১০+

অংশীদার

১০ হাজার+

সদস্য

অংশীদার

 কার্যক্রম ও সেবা

সড়ক নিরাপত্তা শিক্ষা

প্রচার এবং অ্যাডভোকেসি

সড়ক নিরাপত্তা গবেষণা

সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা

 নেটওয়ার্কিং 

কপিরাইট © ২০২১ নিরাপদ সড়ক চাই। সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

 পরিকল্পনা, ব্র্যান্ডিং এবং প্রযুক্তি সহায়তায়

Rapid Mind Web